স্টাফ রিপোর্টার : দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৬৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৩৬ হাজার ৭৫১ জন। একই সময়ের মধ্যে মারা গেছেন আরো ২১ জন, এ নিয়ে মোট প্রাণহানি দাঁড়ালো ৫২২ জন।

মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস শনাক্তে ঈদের দিনও অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় চার হাজার ৪১৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে পাঁচ হাজার ৪০৭টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো দুই লাখ ৫৮ হাজার ৪১১টি।

নাসিমা সুলতানা বলেন, গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন করে ২১ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের মোট সংখ্যা দাঁড়ালো ৫২২ জনে। নতুন যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ১৪ জন পুরুষ এবং ৭ জন নারী।

নাসিমা সুলতানা বলেন, নতুন করে সুস্থ্য হয়েছে ২৪৫ জন। মোট সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৫৭৯ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বিবেচনায় সুস্থতার হার ২১ দশমিক ৫৬ শতাংশ।

বুলেটিনে জানানো হয়, গত এক দিনে দেশের ৪৮টি ল্যাবে ৫ হাজার ৪০৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই সময়ে নতুন করে ১৮২ জনকে আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সারা দেশে আইসোলেশনে রয়েছেন ৪ হাজার ৭৭০ জন।

ব্রিফিংয়ের করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়ে অধ্যাপক নাসিমা বলেন, তরল খাবার, কুসুম গরম পানি ও আদা চা পান করবেন। সম্ভব হলে মৌসুমী ফল খাবেন ও ফুসফুসের ব্যায়াম করবেন।