স্টাফ রিপোর্টার : সরকারি নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে ঈদে ঢাকা থেকে বাড়ি যাওয়া লোকজন সারা দেশে বাড়িয়েছে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি। এ কারণে জুন মাসে দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ নিতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই জুনে করোনা প্রতিরোধে আরও কড়াকড়ি আরোপের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

সরকারি হিসাবমতে, প্রতি বছর ঈদের সময়ে নাড়ীর টানে রাজধানী ছাড়েন গড়ে প্রায় ১ কোটি মানুষ। এবারের ঈদে বাড়ি যেতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা মানেননি অনেকেই। গণপরিবহন না থাকলেও ব্যক্তগত গাড়ি, মোটরবাইক, সিএনজিসহ নানা উপায়ে রাজধানী ছেড়েছেন অন্যান্য বারের ১০ ভাগের একভাগ অর্থাৎ ১০ লাখ মানুষ।

ঈদের আগের ৭ দিনে মাওয়া ফেরিঘাট দিয়ে পারাপার হয়েছেন অন্তত ২ লাখ মানুষ। আর পাটুরিয়া ঘাট দিয়ে সাড়ে তিন লাখ। সড়কপথে অন্যান্য জেলায় গিয়েছেন আরো প্রায় ৫ লাখ। এ তথ্য বিআইডব্লিউটিএ ও যাত্রী কল্যাণ সমিতির।

ঘরমুখো মানুষের ভিড়ে যাত্রাপথে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার কোন সুযোগ ছিলো না। বাড়ি গিয়েও এসব মানুষ থাকেননি কোয়ারেন্টিনে। অবাধে ঘুরেছেন, বাজার করেছেন, মিশেছেন সবার সঙ্গে।

সরকারি বিধি না মানা ঈদ ফেরত লোকজনের কারণে জুন মাসে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা।

ঈদে বাড়িতে যাওয়া মানুষ আবার ফিরতে শুরু করেছেন ঢাকায়। সংক্রমণ প্রতিরোধে কোয়ারেন্টিন নিশ্চিতসহ জুন মাসে আরো কড়াকড়ি আরোপের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।