স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এক মাসের থাকা-খাওয়ার বিল কীভাবে ২০ কোটি টাকা হয়, তা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

সোমবার জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনে যোগ দিয়ে এ নির্দেশ দেন তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত রোগীদের সেবাদানকারী চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এক মাসে খাবারের বিল ২০ কোটি টাকা হয়েছে বলে সম্প্রতি খবর ছড়িয়ে পড়ে। এত ব্যয় নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও আলোচনা হচ্ছে।

বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেন। বিরোধীদলীয় উপনেতার বক্তৃতার সঙ্গে একমত পোষণ করে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের সেবাদানকারী চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের এক মাসের খাবারের বিল ২০ কোটি টাকা কী করে হয়, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, থাকা-খাওয়া বাবদ মেডিকেল কলেজের হিসাব অনুযায়ী ২০ কোটি টাকা ব্যয় একটু বেশিই মনে হচ্ছে । তবে, এটা আমরা তদন্ত করে দেখছি, এত অস্বাভাবিক কেন হবে। প্রধানমন্ত্রী জানান, এ ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে, ঢাকা মেডিকেলের করোনা চিকিৎসা দেয়া দুই হাজার চিকিৎসক-নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীর এক মাসের থাকা-খাওয়ার বিল ২০ কোটি টাকা দেখানো হয়। এতে হোটেল ভাড়া ১২ কোটি এবং খাবারের বিল আসে সাড়ে ৫ কোটি টাকা।