স্টাফ রিপোর্টার : কক্সবাজারে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। তিনি বলেন, এই হত্যাকাণ্ড নৃশংসতম ঘটনা। এ ঘটনায় সেনাবাহিনীর অভ্যন্তরীণ বিভাগীয় তদন্ত চলছে।

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে ৬টি রেজিমেন্টকে কালার প্রদান অনুষ্ঠানে জেনারেল আজিজ এ কথা বলেন।

বুধবার সকালে সেনাবাহিনীর ৬টি রেজিমেন্টের রেজিমেন্ট কালার প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দেন সেনাপ্রধান। কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করে রেজিমেন্টগুলোকে সামরিক ঐতিহ্যবাহী আনুষ্ঠানিকতায় পতাকা তুলে দেন তিনি।

অনুষ্ঠান শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের সেনাপ্রধান বলেন, কক্সবাজারে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদের হত্যাকাণ্ড নৃশংসতম ঘটনা। এ ঘটনার পর একটি অশুভ চক্র অতীতের মতোই পুলিশ ও সেনাবাহিনীর মধ্যে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করেছে। তবে তারা সফল হতে পারেনি।

সিনহা হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সেনাবাহিনীর অভ্যন্তরীণ বিভাগীয় তদন্ত চললেও এ বিষয়ে সরকারের কাছে কোনো সুপারিশ করা হবে না বলেও জানান সেনাপ্রধান।

গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ৯টায় টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর মেরিন ড্রাইভ সড়কে এপিবিএন চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এ ঘটনায় গত ৫ আগস্ট সিনহার বোন শাহরিয়ার শারমিন বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরদিন টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

হত্যা মামলাটি তদন্ত করছে র‍্যাব। মামলায় এ পর্যন্ত সাবেক ওসি প্রদীপ দাশসহ ১০ পুলিশ সদস্যকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।