হাকিকুল ইসলাম খোকন ,মো : নাসির,বাপসনিঊজ।গত ২৬ শে জুন, শুক্রবার ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপির) চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্তজা ও মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা এক যৌথ বিবৃতিতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন,আসন্ন ঈদুল আযহা কে সামনে রেখে ঢাকা সহ সারা দেশে সীমিত আকারে পশুর হাট বসানোর সিদ্ধান্তের গভীর উদ্বেগ ও উৎকন্ঠা প্রকাশ করে বলেন,প্রতিদিন হু হু করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, যেটি জুলাই মাসে আরো তীব্র আকার ধারণ করতে পারে।এই মুহূর্তে সীমিত আকারে ও পশুর হাট বসানোর সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী ছাড়া আর কিছু নয়।ইতিপূর্বে সময়ের প্রেক্ষাপটে মসজিদে তারাবী নামাজ পরা থেকেও আমরা বিরত ছিলাম।পবিত্র মক্কা নগরীতেও পবিত্র হজ পালন করা হবে শুধুমাত্র যারা সৌদিআরবে যারা বসবাস করেন,তাদের মধ্যে যুবক ও তরুণ ছাড়া বৃদ্ধদেরকে ও না আসার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।বাংলাদেশ সহ সারা পৃথিবীর ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কেও পবিত্র হজ পালনে বিরত রাখা হয়েছে করোনা প্রেক্ষাপটের কারনে।যেভাবে বাংলাদেশে প্রতিদিন করোনার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে সকলের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।সেখানে নতুন করে পশুর হাট বসানো হলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ পর্যায়ে চলে যেতে পারে।প্রতিদিনই বিভিন্ন গার্মেন্টস কর্মীদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর আমরা শুনতে পাচ্ছি।এই প্রেক্ষাপটে সরকার যদি কঠিন হস্তে পদক্ষেপ গ্রহণ না করে,এর দায় কোনোভাবেই এড়াতে পারবে না।