উত্তম সাহা,হাতিয়া প্রতিনিধি : প্রবল স্রোতে  মাছধরা ট্রলার ডুবে তিন জেলে নিখোঁজ হওয়ার ৫ঘন্টা পর ১১ জনকে জীবিত ও মৃত তিন জনের লাশ উদ্ধার করে এলাকাবাসী। বুধবার বিকালে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ভাসানচরে সন্নিকটে মেঘনা নদীতে এ ট্রলার দূর্ঘটনার ঘটনা ঘটে।

জানাযায়, প্রতিদিনের ন্যায় হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটের যতিস্টি মাঝির ট্রলারটি ইলিশ শিকারের জন্য ভাসানচরের কাছে যায়। নদীতে জালপেলার জন্য তারা নঙ্গল করে অপেক্ষা করতে ছিল। এসময় প্রবাল ¯্রােতে ট্রলারটি উল্টে গেলে সাথে সাথে ট্রলারে থাকা ১৪ মাঝি মাল্লা সবাই নদীতে পড়ে যায়। পরে ১৪জনের মধ্যে ১১জন তীরে উঠতে পারলে ও তিন জন নিখোঁজ হয়। পরে খোজাখুজি করে ৫ ঘন্টা পর বুধবার বিকালে নিখোঁজ তিন জনের মরদেহ উদ্ধার করে এলাকাবাসী। মৃত তিনজন হলো সুর্বচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের নিরঞ্জন দাসের ছেলে শুকলব দাস (২৫), সূবর্নচর চর আমান উল্যা ইউনিয়নের অর্জুনের ছেলে সৌরভ (১৪) ও হাতিয়া চরকিং ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামের মনিন্দ্র দাসের ছেলে প্রাননাথ দাস (৫০) ।

এদিকে বিকালে মৃত তিন জেলের লাশ হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটে পৌছলে মৃত পরিবার তা গ্রহন করে নিজ নিজ বাড়ীতে সতকারের ব্যবস্থা করে।

এ ব্যাপারে হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রেজাউল করিম জানান, দূর্গটনার বিষয়টি আমি শুনেছি। পরবর্র্তীতে মৃত ব্যাক্তিদের পরিবারকে আর্থিক সহযোগীতা করা হবে।