ফরিদপুরে মোবাইল ফোন চুরির টাকা দিয়ে একে একে ২৬টি বিয়ে করার পর ২৭ নম্বর বিয়ের সময় বাবু শেখ (৩৭) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে ভাঙ্গা থানা পুলিশ।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত বাবু জেলার সদরপুর উপজেলার আকোটেরচর গ্রামের দলিল উদ্দিন শেখের ছেলে। জানা যায়, সম্প্রতি দিনের বেলা ভাঙ্গা উপজেলার ছিলাধরচর গ্রামের এক বাড়ি থেকে একটি মোটরসাইকেল, কয়েকটি দামি মোবাইল ফোনসেট, ল্যাপটপসহ মালপত্র চুরি করে বাবু। এর ১০ দিন পর ভাঙ্গার জান্দি গ্রামের দরিদ্র এক পরিবারের মেয়ের সঙ্গে বাবুর ২৭তম বিয়ে ঠিক হয়। বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) এই বিয়ের কথা ছিল।

২৭ নম্বর বিয়ের আগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভাঙ্গা থানার এস আই মোঃ আজাদ জানান, বাবুকে জিজ্ঞাসাবাদের তথ্যে বলেন, ‘অভিভাবকদের দরিদ্রতার সুযোগ নিয়ে টাকা দিয়ে তাদের মেয়েকে বিয়ে করতেন বাবু। বিয়ের পর ওই এলাকায় খুঁজে খুঁজে চুরি করে পালিয়ে যেতেন। গা ঢাকা দিয়ে থাকতেন। পরে মোবাইল ফোন বিক্রির টাকায় আবার বিয়ে করতেন।’

এছাড়া আবুল খায়ের মাতুব্বর (৩২) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও তিনি জানান। খায়ের ভাঙ্গা উপজেলার জান্দী গ্রামের আবু বক্করের ছেলে। খায়ের ও বাবু আত্মীয় (ভায়রা ভাই) এবং বাবুর চুরি কাজের সহযোগী বলে জানান এস আই।

তিনি বলেন, আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। দুইজনকে তিন দিনের পুলিশ হেফাজতে চেয়ে আবেদনও করা হয়েছে আদালতে।

তবে পুলিশ এখনও তাদের কাছ থেকে কোনো মালপত্র উদ্ধার করতে পারেনি। পুলিশ মালামাল উদ্ধারের চেষ্টা করছে বলে তিনি জানিয়েছেন।