জম্মু এবং কাশ্মীরের সোপর নামক স্থান বুধবার (১ জুলাই) সকালে আবারও জঙ্গি হামলায় রক্তাক্ত হয়ে ওঠে। সেখানে আচমকাই নিরাপত্তা বাহিনীর টহলদারী ভ্যান লক্ষ্য করে হামলা চালায় জঙ্গিরা এবং তাদের গুলিতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় এক ভারতীয় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফ সদস্যের।

এছাড়া ওই জঙ্গি হামলার নিহত হন এক স্থানীয় বাসিন্দাও। যখন ওই জঙ্গি হামলা চলছিল তখনই শ্রীনগর থেকে হান্দোয়াড়া যাওয়ার জন্যে ওই পথ দিয়ে নাতিকে সঙ্গে নিয়ে একটি চার চাকার গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু শ্রীনগর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দূরে বারমুল্লা জেলার সোপরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। তার সঙ্গে থাকা মাত্র বছর তিনেক বয়সের নাতিটি বুঝতেই পারে না হঠাৎ কী হলো তার দাদার। রক্তে মাখামাখি দাদার শরীর ধরেই টানাটানি শুরু করে সে।

ভারতীয় পুলিশ জানায়, বেশ কিছুক্ষণ ডাকাডাকির পরেও দাদা না সাড়া দেওয়ায় ভয়ে কিছুক্ষণের জন্যে অজ্ঞান হয়ে পড়ে শিশুটি।

কাশ্মীর পুলিশের তরফ থেকে শিশুটির একটি ছবি টুইট করা হয়। দেখা যায়, এক সিআরপিএফ জওয়ান শিশুটিকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কোলে তুলে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাচ্ছেন।

গত সপ্তাহেও অনন্তনাগে সিআরপিএফের টহলদারী বাহিনীকে লক্ষ্য করে জঙ্গিরা যখন হামলা চালাচ্ছিল সেই সময় ৬ বছরের একটি শিশু গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। নিহান ভাট নামে ওই শিশুটি পার্ক করে রাখা একটি গাড়িতে ঘুমোচ্ছিলো, সেই সময়েই জঙ্গিদের চালানো গুলিতে মারা যায় সে।