হাকিকুল ইসলাম খোকন, মো:নাসির,হেলাল মাহমুদ,বাপসনিউজ,আইবিএন:যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি: কভিড-১৯ এর সর্বনাশা কালো থাবায় দুনিয়া জুড়ে মানুষের আর্তনাদ দিন দিন বেড়েই চলছে। আমেরিকা, রাশিয়া, চীন, ভারত, বাংলাদেশ সহ সর্বত্র সর্বনাশা মরণব্যাধী করোনার হিংস্র থাবায় জর্জরিত করোনা কেড়ে নিয়েছে অনেক মা, যার ফলে শিশু সন্তান জানে না কে করবে তাঁকে লালন পালন। আজ মা-বাবাহীন সন্তানের আর্তচিৎকার সর্বত্র বিরাজমান। এই হেন দূযোর্গের মধ্যে ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইট্স ডেভলপমেন্ট আর্ত-পীড়িত ক্ষুধার্ত মানুষের সেবায় অবিরাম সেবা দিযে যাচ্ছে যা প্রশংসনীয়। এ নিয়ে গত এপ্রিল হতে পাঁচ বার কুইন্সের বিভিন্ন জায়গায় কম্যুনিটি বোর্ড-৩ এবং কুইন্স ডিস্ট্রিক এর্টনী অফিস থেকে প্রাপ্ত সামগ্রী জনগণের মধ্যে বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া সংগঠনের নিজস্ব তহবিল হতে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, শিশু খাদ্য বিতরণ করা হচ্ছে।খবর বাপসনিঊজ।

সর্বশেষ ২৭ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার জ্যামাইকাস্থ সার্টফিন এবং ১১১ এভিনিউ তিতাস গ্রোসারীর সম্মুখে একশত পরিবারকে স্বাস্থ্য সম্মত খাবার বিতরণ করা হয়। এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কাউন্সিল ওমেন অ্যাডরিয়েন এডাম্স এর সহকারী ক্যাথরিন মুনি, বিশেষ অতিথি জেবিবিএ-এর প্রাক্তন সভাপতি তিতাস ডিপাটমেন্টাল স্টোরের কর্ণধার কম্যুনিটি লীডার আবুল ফজল দিদার,লেখক ও গবেষক জসিম উদিদন।অনুষ্ঠানের প্রারম্ভে সংগঠনের সভাপতি শাহ শহীদুল হক সাঈদ আগত অতিথিবৃন্দকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে বলেন, আমরা কভিড-১৯ কে ভয় করিনা তবে সামাজিক দূরত্বে মাস্ক ব্যবহার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। আমরা মরণব্যাধি করোনাকে জয় করার জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছি। ভবিষ্যতে আমরা আরও ব্যাপক বিস্তৃতে কমিউনিটি সেবায় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। আমাদের পরবর্তী কর্মসূচী বাংলাদেশকে নিয়ে।

কাউন্সিল ওমেনের সহকারী চীফ অব স্টাফ ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইট্স ভেডলপমেন্টকে সর্বাত্মক সাহায্যের আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি সকলকে সেন্সাসের সদস্য হওয়ার অনুরোধ করেন। আবুল ফজল দিদার কমিউনিটির সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে যেকোন সমস্যার মোকাবেলায় ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইট্স ডেভলপমেন্ট ইউএসএ কে সর্বাত্মক সাহায্যের আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি অনুষ্ঠানটির স্পন্সর করেন। আমাদের পরবর্তী কর্মসূচী বাংলাদেশের বন্যা কবলিত মানুষের পার্শ্বে দাঁড়ানো। আসুন আমরা মাতৃভূমির জন্য সাহায্য ও সহযোগিতা করি। অতঃপর সকলকে ত্রাণ সামগ্রী হস্তান্তর করে কর্মসূচী সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।